সুপ্রিম কোর্টে মেডিয়েশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার দাবি

  • -

সুপ্রিম কোর্টে মেডিয়েশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার দাবি

Tags :

Category : News

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের প্রচলিত রুলস সংশোধন করে মামলাজট নিরসনে কার্যকরী উদ্যোগ হিসেবে সুপ্রিম কোর্টে মেডিয়েশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটি (বিমস)।

শনিবার সুপ্রিম কোর্টের শহিদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সংগঠনটির সাধারণ সভায় সরকারের কাছে এ দাবি জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, ‘আমাদের পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র ভারতের সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয়ভাবে মেডিয়েশন সেন্টার পরিচালনা করে মামলাজট নিরসনে সুফল পাচ্ছেন। আমরা আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের প্রচলিত রুলস সংশোধন করে সুপ্রিম কোর্টে একটি মেডিয়েশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার দাবি জানাচ্ছি।

মেডিয়েশন সেন্টার প্রতিষ্ঠার দাবি খুব শিগগরই প্রধান বিচারপতির কাছে উপস্থাপন করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।

এছাড়া, মামলাজট নিরসনে কার্যকর ভূমিকা পালন ও সমাজে শান্তি-সম্প্রীতি বজায় রাখতে নাগরিকদের সচেতন করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষিত মেডিয়েটরদের মধ্যে থেকে দেশের উচ্চ ও নিম্ন আদালতে বিচারক নিয়োগ এবং দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় মাধ্যমিক স্তরের সিলেবাসে মেডিয়েশন সম্পর্কিত বিষয় অন্তভূক্ত করার দাবি জানান বক্তারা।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আব্দুস সালাম মণ্ডলের সভাপতিত্বে সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখেন বিমসের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী, সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট হরিদাস পাল, বিমসের মুখপাত্র অ্যাডভোকেট মো. আলমগীর হোসেন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আনোয়ারা শাহজাহান, জেসমিন সুলতানা শামসাদ, ড. এস এম খালিকুজ্জামান, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ন কবির শিকদার, অ্যাডভোকেট আফসানা বেগম, মো. শাহিনুর ইসলাম, অ্যাডভোকেট মো. নিয়ামুল কবীর, মো. হাদিউজ্জামান, তিতাস কান্তি পণ্ডিত প্রমুখ।